বিনোদন

কারাগারে কেমন আছেন তাপস পাল?….

এক বছর ধরে কারাগারে আছেন ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেতা ও রাজনীতিবিদ তাপস পাল। গত বছর ৩০ ডিসেম্বর পশ্চিমবঙ্গের চাঞ্চল্যকর রোজভ্যালি-কাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে আটক করে সিবিআই। কারাগারে এক বছর কেমন কাটলো এই অভিনেতার?

জানা যায়, দিনরাত তিনি শুয়ে থাকেন। স্ত্রী ধরে ধরে বসিয়ে দেন কখনও। ভুবনেশ্বরের বেসরকারি হাসপাতালের ৩৩২ নম্বর কেবিনে ‘বন্দি’ তাপস পাল। ভুবনেশ্বরের জেলে গিয়েই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। বন্দিজীবনের প্রায় পুরো সময়টাই কেটেছে হাসপাতালে। সেই হাসপাতালেই তার দেখা শোনা করছেন তার স্ত্রী নন্দিনী। তিনিই জানান, আজকাল প্রায়ই কান্নাকাটি করেন তাপস।

একই হাসপাতালে একই মামলায় বিচারাধীন বন্দি হিসেবে থাকা তৃণমূল সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় জামিন পেয়েছেন মাস তিনেক আগে। সুদীপবাবু এখন রাজনীতিতে ব্যস্ত। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে দেখতে ভুবনেশ্বরে গিয়েছিলেন। তাপসের সঙ্গেও দেখা করেছিলেন। কিন্তু তার পর আর পাত্তা নেই নেতাদের।

দিনে ৪২টা ওষুধ খেতে হয় তাপসকে। মাত্রাতিরিক্ত ডায়াবেটিক সহ নানান শারীরিক সমস্যার জন্য নিয়মিত ফিজিওথেরাপি চলছে তার। তাপসের স্ত্রী নন্দিনী জানান, তাপস খুবই অসুস্থ। চিকিৎসকেরা বলছেন, ওর সুস্থ হতে সময় লাগবে। হাঁটতে-চলতে এখন আর পারেন না। কোনও মতে ধরে ধরে বিছানায় বসাতে হয়। ক্ষীণ হচ্ছে চোখের দৃষ্টিও।

এদিকে তাপস পালের আইনজীবী মিলন কানুনগো জানান, এ বছর এপ্রিল মাসে সিবিআই আদালতে তাপস পালের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র পেশ করে। তিনি তাপস পালের জামিনের জন্য গত জুলাই মাসে ওডিশার হাইকোর্টে আবেদন করেন। সেই আবেদনের শুনানি হয়েছে। আগামী জানুয়ারি মাসে এই আবেদনের রায় দেওয়ার কথা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Read In English»
Close