স্বাস্থ্য ও উপকারী টিপস

আপনি কি জানেন অল্প বয়সে কেন চুল পাকে

যাদের চুল হঠাৎ করে সাদা হতে থাকে তারা এ নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন। এর প্রতিকারের উপায় খোঁজেন।

চিকিৎসা বিজ্ঞান বলছে, মানুষের চুল ফেলিকেলেস নামের এক ধরণের বিশেষ কোষ দিয়ে গঠিত। এই ফেলিকেলেস কোষে ‘মেলানিন’ নামের একটি বিশেষ উপদান থাকে। যারা ত্বকের উপরের কোষগুলোকে রঙিন করে। ফলে ফেলিকেলেস কোষে মেলানিন ঠিকমতো থাকলে চুলের রঙ স্বাভাবিক থাকে। কিন্তু সময়ের সাথে সাথে চুলের ফোলিকেলেস কোষ মেলানিন হারাতে পারে ফলে সাদা চুল হয়।
অল্প বয়সে চুল সাদাহওয়া কারণ :

১. জীনতত্ত্ব: যদি আপনার চুল কম বয়সে সাদা হয় তাহলে বুঝতে হবে এটা আপনার জীনগত সমস্যা। অল্প বয়সে যদি আপনি সাদা চুলে দেখেন তাহলে সম্ভবত আপনার বাবা-মা বা দাদির বাবা-মাও কম বয়সে সাদা চুল ছিল। আপনি জেনেটিক্স পরিবর্তন করতে পারবেন না।

২. মানসিক চাপ: আমরা সবাই মানসিক চাপের স্বীকার হই। দীর্ঘস্থায়ী মানসিক চাপে ঘুমের সমস্যা, দুশ্চিন্তা, ক্ষুধা মন্দা ও উচ্চ রক্তচাপ হতে পারে।

৪. থাইরয়েড সমস্যা: থাইরয়েড সমস্যা দ্বারা সৃষ্ট হরমোনের পরিবর্তন অকালে সাদা চুলের জন্য দায়ী হতে পারে। থাইরয়েড আপনার ঘাড়ের ভিতর অবস্থিত একটি প্রজাপতির আকৃতির গ্রন্থি। এটা শরীরের অনেক কার্যক্রমকে নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

৫. ভিটামিন বি-১২ অভাব: কম বয়সে সাদা চুল ভিটামিন বি-১২ অভাবকে নির্দেশ করে। এই ভিটামিন শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এটি শরীরের শক্তি, চুল বৃদ্ধি ও চুলের রঙে অবদান রাখে।

৬. ধূমপান: অকালে সাদা চুল এবং ধূমপানের মধ্যে একটি সম্পর্ক আছে। এটি পরিচিত যে ধূমপান ফুসফুসের ক্যান্সার ও হৃদরোগের ঝুঁকি বাড়ায়।

সাদা চুল প্রতিরোধ করার উপায় হল:
এক গবেষণায় দেখা গেছে যদি থাইরয়েড সমস্যায় সাদা চুল হয় তাহলে হরমোন থেরাপি চিকিৎসার পর পূনরায় স্বাভাবিক রং ফিরে আসতে পারে। ভিটামিন-১২ অভাবে সাদা চুল হলে চিকিৎসা করালে পিগমেন্ট হতে পারে। তবে ধূমপান বা মানসিক চাপ কারণে চুল সাদা হলে তা আর স্বাভাবিক রং এ ফেরতের কোনো প্রমাণ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Read In English»
Close