সময় সংবাদ

আগে বুঝি নাই, সৌদি গিয়ে বুঝলাম আমি বিক্রি হয়ে গেছি….

লোভনীয় বেতনের চাকরি দেয়ার নামে বিদেশে পাঠানোর নামে একদল দালালের হাতে পড়ছে সাধারণ মানুষ। এরা ভাবতেও পারেনা ভবিষ্যতে এদের জন্য কি অপেক্ষা করছে। এমনই এক দালালের পাল্লায় পড়েছিলেন গৃহবধূ জহুরা বেগম। নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার বাসিন্দা জহুরা পেটের তাগিদে পাড়ি জমাতে চেয়েছিলেন সৌদিতে। কিন্তু সৌদিতে গিয়ে তার চিত্র হলো উল্টো।

বিদেশে পাঠানোর নামে জহুরাকে সৌদি আরবে পাচারকারীদের হাতে বিক্রি করে দেয়া হয়েছিলো। জহুরা নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। নির্যাতন সহ্য করতে না পারায় গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হুইলচেয়ারের মাধ্যমে জহুরা বেগমকে দেশে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

জহুরা জানান, বন্দর উপজেলার ফরাজিকান্দা কবরস্থান রোড এলাকার আদম বেপারি দিন ইসলাম দিনু মিয়া মোটা অঙ্কের বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে সৌদি আরবে পাঠান।

আগে বুঝতে পারেন নি তবে সেখানে গিয়ে জহুরা জানতে পারেন, সৌদি আরবের পাচারচক্র সদস্যদের কাছে তাকে বিক্রি করে দিয়েছেন দিনু মিয়া। পরে তার ওপর নির্মম নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনের একপর্যায়ে তাকে হুইলচেয়ারের করে সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

গৃহবধূ জহুরা বেগম বলেন, আমার ওপর নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে। আমাকে পঙ্গু বানিয়ে দেয়া হয়েছে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই ও প্রতারক আদম বেপারি দিন ইসলাম দিনুর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

দেশে ফিরে রোববার বিকেলে উপজেলার সোনাকান্দা বেপারিপাড়ার গৃহবধূ নির্মম নির্যাতনের শিকার জহুরা বেগম সৌদিতে তার ওপর নির্যাতনের কথা বর্ণনা করেন।

সম্পাদক মোঃ মিজান খান

সম্পাদক ও প্রকাশক মোঃমিজান খান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Read In English»
Close