অন্যান্য

‘ক্রিকেট ছেড়ে জুয়ায় আসক্ত’

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চলমান ১১তম আসর শুরু হওয়ার পর থেকেই জুয়ায় সক্রিয় হয়ে উঠেছে বেটিং চক্রগুলি। কোথাও চায়ের স্টলে, ফ্ল্যাটের গোপন আস্তানায় লুকিয়ে, কোথায়ও আবার অনলাইনে চলছে জুয়া।

বেটিং জুয়ায় লিপ্ত হওয়ায় ভারতের কলকাতা, শিলিগুড়িসহ রাজ্যের বিভিন্ন স্থান থেকে একাধিক বুকিকে গ্রেপ্তার করেছে স্থানীয় পুলিশ। এবার বেটিং জুয়ার অভিযোগে শিলিগুড়ি থেকে গ্রেফতার করা হল সাবেক এক ক্রিকেটারকে। তার নাম সন্দীপ রায়। বাড়ি শিলিগুড়ির হাকিমপাড়ায়। জেলার ক্রিকেট খেলেছেন অনেকদিন।

জানা যায়, সন্দীপের বাবার মোটরবাইক মেরামতের দোকান রয়েছে। সেখান থেকেই বেটিং জুয়ায় চালাচালি করেন তিনি। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শিলিগুড়ি পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ তাকে গ্রেপ্তার করে। তার কাছ থেকে ৩২ হাজার টাকা এবং একাধিক মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়ে।

পুলিশ কমিশনার সুনীশ কুমার চৌধুরি বলেন, আমরা এদিকে নিয়মিত নজর রাখছি। আরও কিছু তথ্য আমাদের হাতে এসেছে। আটককৃত সন্দীপ রায়ের সঙ্গীদেরও খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে। এর আগে শিলিগুড়িতে বেটিং চক্রে জড়িত চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। সন্দীপ পঞ্চম ব্যক্তি।

এদিকে ভারতীয় উইকেটকিপার ঋদ্ধিমান সাহার প্রাক্তন কোচ জয়ন্ত ভৌমিকের তত্ত্বাবধানে এককালে খেলেছেন সন্দীপ। এমন ঘটনার কথা শুনে তিনিও দুঃখিত। তিনি বলেন, সন্দীপ খুব প্রতিভাবান ক্রিকেটার ছিল। বাঁ-হাতে ব্যাট করত। কিন্তু অনেকদিন আগেই খেলার দিক থেকে মনোযোগ সরে গিয়েছিল। নাহলে নিঃসন্দেহে ভাল ক্রিকটার হতে পারত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *