অন্যান্য

২ ইউপি চেয়ারম্যানের পরকীয়া ফাস, ফেসবুকে ভাইরাল!

দুই ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে পরকীয়া সম্পর্ক নিয়ে তোলপাড় চলছে নরসিংদীতে। এ ঘটনা এখন আর নরসিংদীতেই সীমাবদ্ধ নেই ছড়িয়ে পড়ছে ফেসবুকে। ঘটনাটি ঘটেছে নরসিংদী জেলার রায়পুরা উপজেলায়।

নরসিংদী জেলা গঠিত ৭২ টি ইউনিয়ন নিয়ে নিয়ে। একমাত্র নারী চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হয়েছিলেন নাছিমা বেগম। নাছিমা বেগমের স্বামীর মৃত্যুর পর অনেক আশা নিয়ে মরজাল ইউনিয়নবাসী তাকে ভোট দিয়ে জয়ী করেছিলেন। কিন্তু ক্ষমতায় আসতে না আসতেই একই উপজেলার রাধানগর ইউনিয়নের ৬৫ বছর বয়স্ক সাদেক চেয়ারম্যানের সাথে গভীর প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়।

এ বিষয়ে মরজাল ইউনিয়নের একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, সাদেক চেয়ারম্যান ও নাছিমার কু-কীর্তির কারণে এলাকার আনাচে-কানাচে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। সাদেক চেয়ারম্যান প্রভাবশালী হওয়ায় কোনো ব্যক্তিই তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবার সাহস পাচ্ছে না। এদিকে ২টি ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ প্রায়ই বিভিন্নভাবে এই চেয়ারম্যানদের কাছে হেয়-প্রতিপন্ন হচ্ছে।

তাদের অভিযোগ, চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হওয়ার পরে তারা জনগণের কাছে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তার কিছুই করছেন না। তাই জনগণ রীতিমত তাদের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করছে।

রায়পুরা উপজেলা ছাত্রলীগ’ নামে একটি ফেসবুক একাউন্টের স্ট্যাটাসে গত ১৪ ই মে তাদের এই গোপন সম্পর্কের চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। বিগত সময় ধরে সাদেক চেয়ারম্যান ক্ষমতায় থেকে বিভিন্ন অপকর্ম যেমন- কাবিখা, টিআর, এলজিডি, এলআইসি, হতদরিদ্র তহবিলসহ বিভিন্ন বিল ভাউচারের মাধ্যমে সে টাকা-পয়সা আত্মসাৎ করে সম্পদের পাহাড় গড়ে তুলেছেন।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জানান এ ব্যাপারে তিনি পাবলিকের সাথে কথা বলতে চান না। এটা অত্যান্তই ব্যক্তিগত ব্যাপার। পরে তিনি ফোন রেখে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *