সময় এক্সক্লুসিভ

বীরগঞ্জে গৃহবধুকে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়া চেষ্টা, স্বামী পালাতক

মো:তোফাজ্জল হায়দার, দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ১ গৃহবধুকে যৌতুকের দাবীতে হত্যা করে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়া চেষ্টা, ঘাতক স্বামী আনোয়ার পালাতক।

উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের ডাবরাজিনেশ্বরী এলাকার শিবেরডাঙ্গা গ্রামের নুরুল আমিনের পুত্র আনোয়ার হোসেন (২২) ১৯ মে শনিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী আশা আক্তার (১৯) কে মারধর করে হত্যা করে শোয়ার ঘরের ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়া চেষ্টা চালিয়ে পালিয়ে যায়।

জানা গেছে, প্রায় ১ বছর পূর্বে ৪ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা দেনমহর ধার্য করে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার সুন্দরদীঘি ইউনিয়নের মলিস্নকাদহ গ্রামের দীপমাঝিয়াড়ী পাড়ার আজিম উদ্দিনের কন্যা আশা আক্তারের সাথে বিয়ে হয়।

আশা আক্তারের বাবা আজিম উদ্দিন ও তার চাচা আশরাফ আলী অভিযোগ করে বলেন, বিয়ের সময় সাড়ে ৫ লক্ষ টাকা যৌতুকের মধ্যে ৭ ভরি স্বর্ন অলংকার দিয়ে মেয়েটিকে শুশ্বর বাড়ীতে পাঠাই। যৌতুকের ঐ টাকাকে কেন্দ্র করে আশা আক্তারের উপর অমানবিক নির্যাতন চালিয়ে আসছিল আসছিল যৌতুক লভি আনোয়ার ও তার বাবা নুরুল ইসলাম। তাদের অত্যাচার সইতে নাপেরে আশা আক্তার বাবার বাড়ীতে চলে যায়। ৫/৭দিন পূর্বে তারা কিছু টাকা সহ মেয়েটিকে নিয়ে আসে তাদের বাড়ীতে। বর্তমানে প্রায় ১ লক্ষ টাকা বাকি রাখা হয় যা আগামী সপ্তাহে দেওয়ার কথা রয়েছে।

ঘটনার দিন ১৯ মে শনিবার সকাল সাড়ে ১০ টায় আশা আক্তারের স্বামী আনোয়ার, শশুর নুরুল আমিন মোবাইলে আশা আক্তারের বাবা আজিম উদ্দিনের নিকট বাকি টাকার সংবাদ চায়, এসময় তিনি ২/১দিনের সময় নেয়। পরে দুপুর ২টার দিকে আশা আক্তারের মৃত্যুর সংবাদ পায়। তারা এসে আশা আক্তারের শরিলে ও পিঠে মারের দাগ দেখে। তাদের দাবী, স্বামীর পরিবারের লোকেরা তাকে হত্যা করে স্যালিং ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে।

আশা আক্তারের শশুর নুরুল আমিন জানান, আমরা বাড়ীতে কেহই ছিলাম না। এ সুযোগে গলায় পড়নের ওড়না পেচিয়ে শোওয়ার ঘরের স্যালিং ফ্যানের সাথে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

সংবাদ পেয়ে বীরগঞ্জ থানার এসআই মশিউর রহমান সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল লিপিবদ্ধ করে দিনাজপুর এম রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করেছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ সাকিলা পারভিন সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, থানায় একটি অস্বাভাবিক মামলা ১৬(০৫)১৮ দায়ের করে লাশ ময়না তদমেত্মর জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। ভিসারা রির্পোট পেলে জানা যাবে হত্যা না আত্মহত্যা।

এব্যপারে এলাকাবাসী যানায়, কিছুদিন পুর্বে আশা আক্তারের শশুর নুরুল আমিন দোকানী বিস্কুটের সাথে বিষ দিয়ে শিশু হত্যা করেছিলো। এ ঘটনায় তারা দৃষ্ঠান্ত মূলক বিচার কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *