শুক্রবার, ২২ Jun ২০১৮, ০৯:২৫ পূর্বাহ্ন

আসিফকে বিচারকের প্রশ্ন,আপনি গান কেন ছেড়ে দিলেন ?

আসিফকে বিচারকের প্রশ্ন,আপনি গান কেন ছেড়ে দিলেন ?

বাংলাদেশের জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী আসিফ আকবর সবসময় কোন না কোন বিষয় নিয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় আলোচনায় থাকেন ।আবারো আসিফ আকবরকে নিয়ে সমা্লোচনার ঝড় বইছে সোস্যাল মিডিয়ায়।তবে এভারের বিষয়টি ব্যতিক্রম পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ।

মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) একটি দল আসিফকে এফডিসির কাছে তার অফিস থেকে গ্রেপ্তার করে।
সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মোল্যা নজরুল ইসলাম বলেন, তেজগাঁও থানায় সুরকার ও কণ্ঠশিল্পী শফিক তুহিনের দায়ের করা একটি মামলায় তাকে ধরা হয়েছে। বুধবার তাকে আদালতে হাজির করা হবে। এ মামলায় আসিফ ছাড়াও আরও ৪/৫ জন অজ্ঞাত আসামি রয়েছেন।

মামলার বাদী শফিক তুহিন বলেন, আসিফকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি সিআইডির পক্ষ থেকে তাকে জানানো হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রলয় রায় (উপ পুলিশ পরিদর্শক সিআইডি ঢাকা) পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে আসিফ আকবরকে আদালতে হাজির করেন।

আবেদনে বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মামলার বাদীকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন আসামি আসিফ। তিনি ইচ্ছাকৃতভাবে অশ্লীল বক্তব্য প্রকাশ করে এবং মিথ্যা কথা বলে ফেসবুক লাইভে এসে লাখ লাখ মানুষকে শুনিয়ে বাদীর বিরুদ্ধে অবমাননাকর, অশালীন ও মিথ্যা-বানোয়াট বক্তব্য দেন।

আবেদনে আরও বলা হয়েছে, মামলার ঘটনার সঙ্গে আরও যারা জড়িত, তাদের পূর্ণাঙ্গ নাম ঠিকানা এবং মূল ঘটনা উন্মোচন ও মূল হোতাসহ অন্যদের তথ্য সংগ্রহের জন্য ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ প্রয়োজন। তাই আসামিকে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করছে পুলিশ।

ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম কেশব রায় চৌধুরী আদালতে আসিফকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আমরা তো একই এলাকার। আমি আপনার সবকিছুই জানি। আপনি কেন গান ছেড়ে দিলেন? গান না ছাড়লে এ ধরনের সমস্যায় পড়তেন না।’এসব শুনে আসিফ তখন হাসছিলেন।

আসিফ এখনো কারাগারে অাছে তাকে আবারো আদালতে উঠানো হবে।

সংবাদটি ফেজবুকে সেয়ার করুন

অামাদের সংবাদ সংক্রান্ত তর্থ্য

সকল প্রকাশিত/সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট ইত্যদি অনলাইনের নানা সূত্র থেকে সংগৃহীত। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ীনয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের এবং প্রকাশিত সূত্রের। অামাদের প্রকাশিত সংবাদে কোন অভিযোগ থাকলে অামাদের জানাতে পারেন।


© All rights reserved © ২০১৭-২০১৮ দৈনিক সময়. কম
Design & Developed BY দৈনিক সময়
[X]