বিচিত্র সংবাদ

তরুণীকে ধর্ষণ চেষ্টা মসজিদের হুজুরের,জনতার কছে হাতে নাতে আটক

ধর্ষণ বর্তমানে একটি আতঙ্কের নাম। যার কবল থেকে শিশু থেকে বৃদ্ধ কেওই রেহাই পায় না। দেশে বিদেশে প্রতিনিয়তই ঘটছে এই নেক্কারজনক কাজ। এমনকি কোন কিছুকেই ভয় করছে না এই অপরাধীরা বরং ক্রমেই তা বেড়ে চলেছে। এবার এমন এক ন্যাক্কারজনক ঘটনার জন্ম দিলেন মসজিদের হুজুর । জানা গেছে

ভারতের বর্ধমানে এক তরুণীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে পবিত্র রমজান মাসেই মসজিদ থেকে এক মৌলভীকে আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ।
জানা গেছে, ওই তরুণী ঝাড়ফুঁক করাতে বর্ধমানের ভাঙা মসজিদে নিয়ে যান এক নারী। সেখানেই বদরুদ্দিন শেখ নামে ওই মৌলভী তরুণীর শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ উঠেছে।
নির্যাতিতার মায়ের অভিযোগ, গত সোমবার মৌলভীর সঙ্গে দেখা করতে মেয়েকে নিয়ে ভাঙা মসজিদে গিয়েছিলেন তিনি।
কথায় কথায় নিজেকে ঝাড়ফুঁকে দক্ষ বলে দাবি করেন ওই মৌলভী। এরপর তরুণীকে ঝাড়ফুঁক করার নামে পাশের ঘরে নিয়ে যান তিনি।
ওই নারী আরো অভিযোগ করেন, ঘরে একা পেয়ে তরুণীর শ্লীলতাহানি করতে শুরু করেন মৌলভী। এ সময় বাধা দেন ওই তরুণী। তাতেও নিরস্ত হননি ওই মৌলভী।

কোন উপায় নাপেয়ে সম্মান বাচানোর জন্য চিৎকার শুরু ওই তরণীর । তরুণীর চিৎকার শুনে মসজিদে ভিড় করেন স্থানীয় লোকজন । এ সময় হাতে নাতে মৌলভীকে আটক করেন তারা। এমন ঘটনার পর থানায় জানানো হলে পুলিশ অভিযুক্ত হুজুরকে গ্রেফতার করেন।
মৌলভীকে গ্রেফতার করে নিয়ে যাওয়ার সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close