বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:১১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
কলাপাড়ায় যাত্রীবাহী বাস পুকুরে পড়ে আহত ১৩…. হাদিসের গল্পঃ পাহাড়ের গুহায় আঁটকে পড়া তিন যুবক…. ফেনীতে সংখ্যালঘুরা হামলা বা নির্যাতনের স্বীকার হলে,নির্যাতন কারীদের জায়গা ফেনীর মাটিতে হবেনা-নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি…. ফেনী র‍্যাব-৭ এর একিদিন চালানো দুটি অভিযানে অস্ত্র গুলি ও মাদক উদ্ধার সহ আটক-৩…. কালীগঞ্জে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল ও পিকআপ ভ্যানসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক…. ঝিনাইদহে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১ জামায়াত কর্মীসহ ৫৮ জন গ্রেফতার…. রংপুর শহরে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত… চট্টগ্রামে বাস-ট্রেন সংঘর্ষে নিহত ২…. ফেনীর দাঘনভূঞাঁয় বিএনপি’র ৪০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর মঞ্চ ভেঙ্গে গুটিয়ে দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা… ফেনীর ছাগলনাইয়ায় মহামায়া ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ….
গোল করেই মারা গেলেন ফুটবলার

গোল করেই মারা গেলেন ফুটবলার

শেষ হতে চলেছে রাশিয়ার বিশ্বকাপ পর্ব। কিন্তু ক্রমেই যেন বেড়ে উঠেছে ফুটবল উত্তেজনা। গোটা বিশ্বে চলছে এই উন্মাদনা। সেই ঢেউয়ে গা ভাসিয়ে অনুষ্ঠিত একটি ফুটবল ম্যাচে গোল করে পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছেন সাগর দাস নামে এক ফুটবলার।

গত মঙ্গলবার ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় কলকাতার কামারহাটি এলাকায়। স্থানীয় ফুটবলাররা ছাড়াও ম্যাচটিতে অংশ নেন বিভিন্ন এলাকার দামী খেলোয়াড়রাও। তবে সেদিনকার ম্যাচে সকলের আলোচনার মধ্যমনি ছিলেন সাগর দাস।

স্থানীয় উদীয়মান ফুটবলার সাগর মাঝ মাঠ থেকে বল নিয়ে প্রতিপক্ষে ডি বক্সে গিয়েছিলেন ৭ জনকে পাশ কাটিয়ে। ডি বক্সের ভেতর সতীর্থকে বল পাসের পর আবার নিজের পায়ে বল পান তিনি। মুহুর্তেই শট নিয়ে ঢলে পড়ে যান মাঠেই।

তার দলের খেলোয়াড়রা প্রথমে মনে করেছিলেন গোলের আনন্দে মাটিতে শুয়ে পড়েছেন সাগর। কিন্তু তাদের এই চিন্তাকে মিথ্যায় পরিনত করে ততক্ষণে পরপারে চলে গেছেন সাগর দাস।
তাকে কামারহাটি স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ঘটনার পর পরই। কিন্তু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসকগণ সাগরকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।

স্টেট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসক মহালয় কর্মকার বলেন, ‘সাগরকে যখন এখানে আনা হয় তখন একদম নিস্তেজ ছিলেন তিনি। আমরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর বুঝতে পারি তিনি আর বেঁচে নেই। অনেক আগেই তার মৃত্যু হয়েছিল।’

সূত্রঃকলকাতা-অনলাইন


সংবাদটি ফেজবুকে সেয়ার করুন

অামাদের সংবাদ সংক্রান্ত তর্থ্য

সকল প্রকাশিত/সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট ইত্যদি অনলাইনের নানা সূত্র থেকে সংগৃহীত। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ীনয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের এবং প্রকাশিত সূত্রের। অামাদের প্রকাশিত সংবাদে কোন অভিযোগ থাকলে অামাদের জানাতে পারেন।



© All rights reserved © ২০১৭-২০১৮ দৈনিক সময়. কম
Design & Developed BY দৈনিক সময়
Translate »