রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৪:১৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
কলাপাড়ায় যাত্রীবাহী বাস পুকুরে পড়ে আহত ১৩…. হাদিসের গল্পঃ পাহাড়ের গুহায় আঁটকে পড়া তিন যুবক…. ফেনীতে সংখ্যালঘুরা হামলা বা নির্যাতনের স্বীকার হলে,নির্যাতন কারীদের জায়গা ফেনীর মাটিতে হবেনা-নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি…. ফেনী র‍্যাব-৭ এর একিদিন চালানো দুটি অভিযানে অস্ত্র গুলি ও মাদক উদ্ধার সহ আটক-৩…. কালীগঞ্জে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল ও পিকআপ ভ্যানসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক…. ঝিনাইদহে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১ জামায়াত কর্মীসহ ৫৮ জন গ্রেফতার…. রংপুর শহরে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত… চট্টগ্রামে বাস-ট্রেন সংঘর্ষে নিহত ২…. ফেনীর দাঘনভূঞাঁয় বিএনপি’র ৪০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর মঞ্চ ভেঙ্গে গুটিয়ে দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা… ফেনীর ছাগলনাইয়ায় মহামায়া ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ….
মাসের শেষে অ্যাকাউন্টে ২৬ লক্ষ! হতবাক রাজধানী এক্সপ্রেসের চালক

মাসের শেষে অ্যাকাউন্টে ২৬ লক্ষ! হতবাক রাজধানী এক্সপ্রেসের চালক

রেলকর্মীদের বেতন ঈর্ষার করার মতোই৷ তবে মাস গেলে সবচেয়ে বেশি টাকা পান চালক ও গার্ডেরা৷ কিন্তু, তা বলে ২৬ লক্ষ! শুনতে অবাক লাগলেও, অত টাকাই বেতন পেয়েছেন রাজধানী এক্সপ্রেসের এক চালক৷ তিনি রাজস্থানের কোটা ডিভিশনে কর্মরত৷ বেতন বিভ্রাটে রেলের গাফিলতিকে দায়ী করছেন কর্মীদের একাংশই৷

ঘটনাটি ঠিক কী? রাজস্থানের কোটা ডিভিশনের ট্রেন চালকের পদ চাকরি করেন প্রহ্লাদকুমার মীনা৷ রাজধানী এক্সপ্রেস চালান তিনি৷ ওই রেলকর্মীর দাবি, জুন মাসের বেতন ও ভাতা-বাবদ তাঁর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে জমা পড়েছে ২৬ লক্ষ ৪ হাজার ৬০৯ টাকা! মোবাইলে মেসেজও পেয়েছেন তিনি৷ এত টাকা কেন জমা পড়ল? প্রথমটায় বেশ অবাক হয়েছিলেন প্রহ্লাদকুমার মীনা৷ ভেবেছিলেন, হয়তো ব্যাংকের ভুল৷ কারণ ভাতা-সহ তাঁর বেতন ১ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা।

তড়িঘড়ি ব্যাংকে গিয়ে অ্যাকাউন্ট থেকে কিছুটা টাকা তুলেও ফেলেন প্রহ্লাদকুমার৷ তাঁর দাবি, টাকা তোলার পরেও অ্যাকাউন্টে জমা ছিল ২৬ লক্ষ টাকা৷ এরপরই গোটা বিষয়টি রাজস্থানের কোটা ডিভিশনের পে বিভাগে জানান রাজধানী এক্সপ্রেসের ওই চালক৷ শোরগোল পড়ে যায়৷ ঘটনাটি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন কোটার সিনিয়র ডিভিশনাল অ্যাকাউন্টস ম্যানেজার এম কে জৈন। তবে কারণ যাই হোক না কেন, এই ঘটনাকে রেলের চরম গাফিলতি বলে মনে করছেন কর্মীদের একাংশ৷

সূত্রঃকলকাতা অনলাইন


সংবাদটি ফেজবুকে সেয়ার করুন

অামাদের সংবাদ সংক্রান্ত তর্থ্য

সকল প্রকাশিত/সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট ইত্যদি অনলাইনের নানা সূত্র থেকে সংগৃহীত। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ীনয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের এবং প্রকাশিত সূত্রের। অামাদের প্রকাশিত সংবাদে কোন অভিযোগ থাকলে অামাদের জানাতে পারেন।



© All rights reserved © ২০১৭-২০১৮ দৈনিক সময়. কম
Design & Developed BY দৈনিক সময়
Translate »