বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:১০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
কলাপাড়ায় যাত্রীবাহী বাস পুকুরে পড়ে আহত ১৩…. হাদিসের গল্পঃ পাহাড়ের গুহায় আঁটকে পড়া তিন যুবক…. ফেনীতে সংখ্যালঘুরা হামলা বা নির্যাতনের স্বীকার হলে,নির্যাতন কারীদের জায়গা ফেনীর মাটিতে হবেনা-নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি…. ফেনী র‍্যাব-৭ এর একিদিন চালানো দুটি অভিযানে অস্ত্র গুলি ও মাদক উদ্ধার সহ আটক-৩…. কালীগঞ্জে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল ও পিকআপ ভ্যানসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক…. ঝিনাইদহে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১ জামায়াত কর্মীসহ ৫৮ জন গ্রেফতার…. রংপুর শহরে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত… চট্টগ্রামে বাস-ট্রেন সংঘর্ষে নিহত ২…. ফেনীর দাঘনভূঞাঁয় বিএনপি’র ৪০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর মঞ্চ ভেঙ্গে গুটিয়ে দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা… ফেনীর ছাগলনাইয়ায় মহামায়া ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ….
৮ বছর চেষ্টার পর ফাঁদে ধরা পড়লো ৬০০ কেজির কুমিরটি!

৮ বছর চেষ্টার পর ফাঁদে ধরা পড়লো ৬০০ কেজির কুমিরটি!

কুমিরটিকে দেখা গিয়েছে সর্বশেষ আট বছর আগে। এরপর আর কোন খোঁজ মেলেনি। কিন্তু শেষ মেষ ধরা তাকে পড়তেই হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার উত্তরাঞ্চলের ক্যাথরেইন নদীতে বিশালাকৃতির এই কুমিরটি ধরেন বন সংরক্ষকরা। তবে ততদিনে তার ওজন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬০০ কেজিতে। কুমিরটি প্রায় ১৬ ফুট লম্বা। কুমিরটির বয়স প্রায় ৬০ বছর পেরিয়ে গেছে।

বন সংরক্ষকরা বলছেন, তাদের ধরা কুমিরগুলোর মধ্যে এ কুমিরটিই সবচেয়ে লম্বা। এর আগে অবশ্য ২০১১ সালে ১৫ ফুট লম্বা একটি কুমির ধরেছিলেন বন সংরক্ষকরা।

ন্যাশনাল জিওগ্রাফি তথ্যানুসারে, সাধারণত লবণাক্ত পানিতে থাকা কুমিরগুলো ১৭ ফুট পর্যন্ত লম্বা হয়। তবে বিশালাকৃতির কুমির ধরা খুবই বিরল ঘটনা।

অস্ট্রেলিয়ার উত্তরাঞ্চলের বন সংরক্ষণ কার্যক্রমের প্রধান ট্রেসি দুলদিগ বলেন, ২০১০ সালে খোঁজ পাওয়ার পর থেকেই বন সংরক্ষকরা কুমিরটিকে খুঁজছেন। কুমিরটিকে ধরার জন্য ফাঁদ পাতা হয়েছিল। সে ফাঁদেই পা দিলো কুমরিটি। তিনি আরও বলেন, কুমিরটিকে ক্যাথরেইনের একটি কুমির খামারে রাখা হবে।

উত্তরাঞ্চলের পার্ক ও বন্য সংরক্ষণ কর্তৃপক্ষ তাদের ওয়েবসাইটে বলেছে, এ বছরের আগে ১৮৭টি কুমির ধরা হয়েছে। এজন্য দর্শনার্থীদের কুমির সম্পর্কে সচেতন থাকতেও বলা হয়েছে।


সংবাদটি ফেজবুকে সেয়ার করুন

অামাদের সংবাদ সংক্রান্ত তর্থ্য

সকল প্রকাশিত/সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট ইত্যদি অনলাইনের নানা সূত্র থেকে সংগৃহীত। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ীনয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের এবং প্রকাশিত সূত্রের। অামাদের প্রকাশিত সংবাদে কোন অভিযোগ থাকলে অামাদের জানাতে পারেন।



© All rights reserved © ২০১৭-২০১৮ দৈনিক সময়. কম
Design & Developed BY দৈনিক সময়
Translate »