বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, ০১:২১ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
কলাপাড়ায় যাত্রীবাহী বাস পুকুরে পড়ে আহত ১৩…. হাদিসের গল্পঃ পাহাড়ের গুহায় আঁটকে পড়া তিন যুবক…. ফেনীতে সংখ্যালঘুরা হামলা বা নির্যাতনের স্বীকার হলে,নির্যাতন কারীদের জায়গা ফেনীর মাটিতে হবেনা-নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি…. ফেনী র‍্যাব-৭ এর একিদিন চালানো দুটি অভিযানে অস্ত্র গুলি ও মাদক উদ্ধার সহ আটক-৩…. কালীগঞ্জে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল ও পিকআপ ভ্যানসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক…. ঝিনাইদহে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১ জামায়াত কর্মীসহ ৫৮ জন গ্রেফতার…. রংপুর শহরে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত… চট্টগ্রামে বাস-ট্রেন সংঘর্ষে নিহত ২…. ফেনীর দাঘনভূঞাঁয় বিএনপি’র ৪০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর মঞ্চ ভেঙ্গে গুটিয়ে দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা… ফেনীর ছাগলনাইয়ায় মহামায়া ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ….
‘পাঁচ মিনিটের জন্য চা খেতে গিয়েছিলাম’

‘পাঁচ মিনিটের জন্য চা খেতে গিয়েছিলাম’

হাতে স্যালাইনের চ্যানেল করা। হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে এলেন এক রোগী। হাসপাতালের গেটে দাঁড়ানো নিরাপত্তা কর্মী। কিন্তু কিছু বললেন না। রোগী পাশের এক চায়ের দোকানে দাঁড়িয়ে চা খেয়ে ফের হাসপাতালে ঢুকে গেলেন!

বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা নাগাদ এমন দৃশ্য দেখা গেল অশোকনগর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে। ওই রোগীকে প্রশ্ন করাতে তিনি বলেন, ‘‘পাঁচ মিনিটের জন্য বেরিয়ে চা খেতে গিয়েছিলাম। কেউ বাধা দেননি। এমন তো এখানে অনেক রোগীই করেন।’’ মঙ্গলবার ওই রোগী ভর্তি হয়েছেন।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক রোগী নিখোঁজ হওয়ার ঘটনার পরও হুঁশ ফেরেনি অশোকনগর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের। এখনও চিকিৎসাধীন রোগীরা বিনা বাধায় ওয়ার্ডের বাইরে বেরিয়ে ফের তাঁরা ওয়ার্ডে ফিরে যাচ্ছেন। যদিও হাসপাতাল ভবনের গেটে নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন রয়েছেন।

২২ জুলাই সকালে প্রকাশ্যে হাসপাতালের ওয়ার্ড থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ হন নিতাই মণ্ডল নামে চিকিৎসাধীন এক প্রৌঢ়। এখনও তাঁর খোঁজ মেলেনি। ওই ঘটনার পর হাসপাতালের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রোগীর আত্মীয় ও এলাকার মানুষ।

কিন্তু পরিস্থিতির যে বিন্দুমাত্র বদল হয়নি তা বৃহস্পতিবার হাসপাতালে গিয়েই দেখা গেল। ওয়ার্ডের গেটে কর্তব্যরত নিরাপত্তা কর্মীকে এ বিষয়ে জানাতেই তিনি উত্তেজিত হয়ে উঠলেন। বললেন, ‘‘রোগী বাইরে গিয়েছেন এমন কোনও ঘটনা ঘটেনি।’’ ছবি আছে বলাতে ওই কর্মী চুপ হয়ে গেলেন। বললেন, ‘‘এখান থেকে সরে যান, রোগীরা আসছেন।’’

রোগীর আত্মীয়েরা জানান, হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে বাইরে ঘুরে আসার এমন ঘটনা এই হাসপাতালে প্রায়ই হয়। অনেকেই হাসপাতালের পিছন গেট থেকে বেরিয়ে যান। কিছুক্ষণ পর আবার ফিরেও আসেন। হাসপাতালের অনেকেই এটা জানেন। কিন্তু কিছু বলেন না। নিরাপত্তা রক্ষীরাও বাধা দেন না বলে অভিযোগ। রোগীর আত্মীয়রা বলেন, ‘‘এমন পরিস্থিতিতে আমরা চিন্তায় পড়ি। রোগী ভর্তি করার পরেও নিশ্চিন্তে থাকতে পারি না। এর মধ্যে আবার রোগী নিখোঁজের ঘটনাও ঘটে গিয়েছে।’’

হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে, অনেক সময় রোগীর বাড়ির লোকজনও রোগীকে বাইরে নিয়ে যাওয়ার অনুমতি চান।

হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে, ভিজিটিং আওয়ারে এটা একটা সমস্যা। ওই সময় রোগীর বাড়ির লোকজন ওয়ার্ডে ঢোকেন। তখনই রোগীরা বাইরে বেরিয়ে যাচ্ছেন। রোগীদের ও বাড়ির লোকজনকে আলাদা করে শনাক্ত করার উপায় থাকে না।

হাসপাতাল সুপার সোমনাথ মণ্ডল বলেন, ‘‘রোগীর বাইরে বেরিয়ে যাওয়া বন্ধ করতে পদক্ষেপ করা হচ্ছে। মানুষকেও ওই বিষয়ে সহযোগিতা করতে হবে।’’

সূত্র:আনন্দ-বাজার


সংবাদটি ফেজবুকে সেয়ার করুন


© All rights reserved © ২০১৭-২০১৮ দৈনিক সময়. কম
Design & Developed BY দৈনিক সময়
Translate »