বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৬:৫১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনামঃ
কলাপাড়ায় যাত্রীবাহী বাস পুকুরে পড়ে আহত ১৩…. হাদিসের গল্পঃ পাহাড়ের গুহায় আঁটকে পড়া তিন যুবক…. ফেনীতে সংখ্যালঘুরা হামলা বা নির্যাতনের স্বীকার হলে,নির্যাতন কারীদের জায়গা ফেনীর মাটিতে হবেনা-নিজাম উদ্দিন হাজারী এমপি…. ফেনী র‍্যাব-৭ এর একিদিন চালানো দুটি অভিযানে অস্ত্র গুলি ও মাদক উদ্ধার সহ আটক-৩…. কালীগঞ্জে বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল ও পিকআপ ভ্যানসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক…. ঝিনাইদহে পুলিশের বিশেষ অভিযানে ১ জামায়াত কর্মীসহ ৫৮ জন গ্রেফতার…. রংপুর শহরে দুটি বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত… চট্টগ্রামে বাস-ট্রেন সংঘর্ষে নিহত ২…. ফেনীর দাঘনভূঞাঁয় বিএনপি’র ৪০ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর মঞ্চ ভেঙ্গে গুটিয়ে দিয়েছে দূবৃর্ত্তরা… ফেনীর ছাগলনাইয়ায় মহামায়া ইউপি চেয়ারম্যানকে মারধরের অভিযোগে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ….
জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর ৪৩ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ব্যাতিক্রমধর্মী শোক দিবস পালন করেছে ফেনী জেলা পুলিশ সুপার…

জাতীর জনক বঙ্গবন্ধুর ৪৩ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ব্যাতিক্রমধর্মী শোক দিবস পালন করেছে ফেনী জেলা পুলিশ সুপার…

সৈয়দ কামাল,ফেনী জেলা প্রতিনিধীঃ১৫ আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে ব্যাতিক্রমধর্মী শোক দিবস পালন করেছে,ফেনী জেলা পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার।জাতীর জনকের রুহুয়ের মাগফিরাত কামনাকরে বুধবার দিনের প্রথম প্রহরে ফেনী জেলা পুলিশ লাইন মিলনায়তনে কুরআন খতম ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠান সম্পুর্ণ করেন।এরপর পুলিশ সুপারের আমন্ত্রীত অতিথি হিসেবে দলে দলে পুলিশ লাইনে প্রবেশ করতে থাকে,ফেনী জেলা শহরে বসবাসকারী সুবিধা বঞ্চিত প্রায় দুই শ’র অধীক পথ কলি শিশু কিশোর ও তাদের পরিবার।এই সময় পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম সরকার তার আমন্ত্রীত অতিথিদের বরণ করে নিতে ব্যাস্ত হয়ে পড়েন।অতিথিদের সবাই উপস্থিত হওয়ার পর দিনের প্রায় শেষভাগ অবধী আমন্ত্রীত অতিথিদের সাথে সময় কাটান পুলিশ সুপার।জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শাহাদাত বরণকারী সদস্যদের আত্নার মাগফিরাত কামনার লক্ষে এইসব আমন্ত্রীত অতিথিদের দুপুর বেলায় সন্তুুষ্ট জনক ভাবে পেটপুরিয়ে খাওয়ানোর জন্য এদেরকে দাওয়াত দিয়েছিলেন,পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম সরকার।দাওয়াতি মেহমানরা সবাই পুলিশ লাইনে একত্রিত হওয়ার পর পুলিশ সুপার সহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যদের নিয়ে,বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর স্মৃতি চারণ মূলক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে স্মৃতি চারণ কালীন,পুলিশ সুপার যখন শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদেরকে ১৫ আগষ্ট রাতে কিভাবে হত্যা করা হয়েছিল সেই নির্মম নিষ্ঠুর হত্যাকান্ডের ঘটনাটি বর্ণনা করছিলেন,তখন নিজে যেমন চোখের পানি ধরে রাখতে পারেন নি,তেমনি উনার মুখে হত্যাকান্ডের বর্ণনা শুনা কালীন,ইতিহাস না জানা পথ কলি শিশুদের মধ্যে বেশীরভাগ শিশুর কাঁন্নায় হৃদয় বিদায়ক এক করুণ দৃশ্যের সৃষ্টি হয়েছিল।পুলিশ সুপার যদি বঙ্গবন্ধুর মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে শোক দিবস পালনের লক্ষে এই দরণের ব্যাতিক্রমধর্মী অনুষ্ঠানের আয়োজন না করতো তাহলে হয়তো সুবিধা বঞ্চিত এইসব পথ কলি শিশুরা বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের ইতিহাস জীবনে ও জানতো না।বঙ্গবন্ধুর জীবনী নিয়ে আলোচনা ও স্মৃতি চারণ অনুষ্ঠান শেষে,পুলিশ সুপার পথ কলি শিশুদের নিয়ে,তাদের পরিবারের সাথে বসে দুপুরের খাওয়া দাওয়ার পর্ব শেষ করেন।খাওয়া দাওয়ার পর্ব শেষে সুবিধা বঞ্চিত এই সকল পথ কলি শিশুদের নিয়ে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও ফুটবল খেলার আয়োজন করেন,পুলিশ সুপার।সর্বশেষ প্রতিযোগিদের মাঝে পুরষ্কার বিতরণ করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন,বঙ্গবন্ধু সহ ১৫ আগষ্টে নির্মম নিষ্ঠুর হত্যাকান্ডের শিকার সকল শাহাদাত বরণকারীর আত্নার মাগফেরাত কামনায় ব্যাতিক্রমধর্মী শোক দিবস পালনকারী ফেনী জেলা পুলিশ সুপার এসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার।


সংবাদটি ফেজবুকে সেয়ার করুন

অামাদের সংবাদ সংক্রান্ত তর্থ্য

সকল প্রকাশিত/সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট ইত্যদি অনলাইনের নানা সূত্র থেকে সংগৃহীত। পাঠকের মতামতের জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ীনয়। লেখাটির দায় সম্পূর্ন লেখকের এবং প্রকাশিত সূত্রের। অামাদের প্রকাশিত সংবাদে কোন অভিযোগ থাকলে অামাদের জানাতে পারেন।



© All rights reserved © ২০১৭-২০১৮ দৈনিক সময়. কম
Design & Developed BY দৈনিক সময়
Translate »