রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ১২:২২ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষঃ
ফেনীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে একের পর এক মৃ’ত্যু এবার নতুন করে এলাকাভিত্তিক লকডাউনের চিন্তা করছে সরকার হঠাৎ রক্তচোষা পোকার আতঙ্ক, আক্রান্ত ২৫ হাজারের বেশি, কম পড়েছে ভ্যাকসিন যুবলীগ নেতার হাতে অমানবিক নির্যাতনের শিকার বৃদ্ধ, ভিডিও ভাইরাল জায়েদ খানকে কয়জন চেনে? কড়া জবাব দিলেন হিরো আলম চুমাচুমি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়- কেন এমন নাম? যুক্তরাষ্ট্রে চলছে বিক্ষোভ সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত থাকতে বললেন ট্রাম্প যুক্তরাজ্যের এই প্রথম হিজাবি বিচারক :রাফিয়া আরশাদ আমার শেষ নিঃশ্বাস পর্যন্ত একটা টাকাও হারাম খেতে চাই না: এসপি ফরিদ উদ্দীন সীমানা অতিক্রম করেছে চীনা সৈন্যরা উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে মোদী

ঈদের দিন টাকা নাই রিকশা না চালাইলে খামু কী

দৈনিক সময়:
                                               
  •   প্রকাশিত : ০৩:৩৭ pm | সোমবার ২৫ মে, ২০২০
  • ৬২৫ বার পঠিত

ঈদের দিন টাকা নাই রিকশা না চালাইলে খামু কী। রাস্তার পাশে রিকশাটি থামিয়ে রেখে ফুটপাতে ধপ করে বসে পড়লেন আনুমানিক সত্তরোর্ধ্ব বৃদ্ধ মোফাজ্জল হোসেন।

পেটের তাগিদে কাকডাকা ভোরে গ্যারেজ থেকে রিকশা নিয়ে বের হন। দুপুর ১২টা পর্যন্ত রিকশা চালিয়ে ২৫০ টাকা আয় করেছেন। দুপুরের প্রচণ্ড রোদের কারণে হঠাৎ করে শরীরটা ভীষণ খারাপ লাগতে থাকে। বুকে ধরফর শুরু হয়। একটু বিশ্রাম নিতে বসেছেন।

আজ ২৫ মে দুপুরে এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে বৃদ্ধ রিকশাচালক মোফাজ্জল হোসেন বারবার হাঁপাচ্ছিলেন। থেমে থেমে তিনি বলছিলেন, বয়স তো আর কম হলো না, কিন্তু এমন নিরস ঈদ তার জীবনেও দেখেননি।

অন্যান্য বছর ঈদের দিনে যেখানে যাত্রী টেনে একটু বিশ্রামের সময় পেতেন না, সেখানে আজ রাস্তাঘাট নীরব, মানুষের চলাচল খুবই কম। করোনাভাইরাসের কারণে তাদের আয়-রোজগারের অনেক কমে গেছে বলেও জানান।

বৃদ্ধ বয়সে কেন রিকশা চালাচ্ছেন, সন্তান আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে বৃদ্ধের চোখে-মুখে এক ধরনের বেদনার ছাপ ফুটে উঠল। ইতস্তত ভঙ্গিতে বললেন, রিকশা না চালালে খামু কী? তিনি জানান, তিন ছেলে থাকলেও ওরা কেউ সাথে থাকে না। যে যার মতো বিয়ে করে আলাদা থাকে।

এ বৃদ্ধ বয়সেও তার ঠাঁই হয়েছে রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে মেয়ের বাড়িতে। বয়স হলেও মেয়ের ওপর বসে খেতে তার মন সায় দেয় না। তাই তো রিকশা নিয়ে বেরিয়ে পড়েন। আগের মতো সারাদিন চালাতে পারেন না। অর্ধেক বেলা চালিয়ে যা রোজগার হয় তাতে তার চলে যায়।

গণমাধ্যমকর্মী পরিচয় পেয়ে তিনি এ প্রতিবেদকের কাছে জানতে চান, এই যে করোনা নাকি কি ভাইরাস দেশে আসছে, এই ভাইরাস বিদায় হবে কবে? চলে আসার সময় বৃদ্ধ বললেন, ছেলেরা কাছে না থাকলেও ওরা বউ পোলাপান নিয়ে ভালো থাকুক এটাই তিনি চান, শুধু মরণ পর্যন্ত যেন শরীরটা ভালো থাকে সেটাই তিনি প্রত্যাশা করেন।
আরো পড়ুনঃ দু’মুঠো ভাতের জন্য ঈদের দিনও রাস্তায় গড়াগড়ি খাচ্ছে ওরা

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৭-২০২০ 'দৈনিক সময়'
The website Developed By Sadeshbangla.Com