1. Mijankhan298@gmail.com : Mijankhan :
  2. Bijoyerbangla@gmail.com : সময় সংবাদ : সময় সংবাদ
চলতি বছরে সূর্যকুমারের ছক্কা ৫০টি, পুরো বাংলাদেশ ৪৭ - সময়য়ের সেরা খবর!
সদ্যপ্রাপ্ত:
জিম্বাবুয়েকে হারিয়ে সুপার টুয়েলভের জায়গা টিকিয়ে রাখল দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা ব্যর্থতার মাঝে ঘুরপাক খাওয়া টাইগারদের নিয়ে অবিশ্বাস্য বার্তা মাশরাফির মাশরাফিকে আইকন করে আমিরসহ এই ৩ বিদেশি ভয়ংকর ক্রিকেটারকে দলে ভেড়ালো সিলেট দেশের মাটিতে ব্যাট হাতে যত রান করলেন আশরাফুল শ্রীলংকার বিপক্ষে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে আরব আমিরাত, দেখুন দুই দলের শক্তিশালী একাদশ বিশ্বকাপের মূল পর্বে ‘একটা জয়ই বদলে দেবে সবকিছু’ বাংলাদেশে কখনোই ১৩৫ স্ট্রাইকরেটের ব্যাটার ছিল না: মোসাদ্দেক ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারাতেই অবিশ্বাস্যভাবে যা বললেন স্কটল্যান্ড অধিনায়ক রিচি বেরিংটন প্রস্তুতি ম্যাচে বিশাল ব্যবধানে হারল বাংলাদেশ হাসান মাহমুদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে দিশেহারা আফগানিস্তান

চলতি বছরে সূর্যকুমারের ছক্কা ৫০টি, পুরো বাংলাদেশ ৪৭

  • প্রাবলিশ করা হয়েছে : মঙ্গলবার, ৪ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৮৯ জন পড়েছে

ক্রিকেট বিশ্লেষকদের মতে টি-টোয়েন্টি হচ্ছে চার-ছক্কার খেলা। এই ফরম্যাটে চার-ছক্কা না হলে খেলাটাই তো বৃথা। বর্তমানে ক্রিকেটীয় সংস্করণে জনপ্রিয়তার শীর্ষে এই সংক্ষিপ্ত ফরম্যাট।

ক্রিকেট বিশ্বের পরাশক্তিরা এই ফরম্যাট দিয়েই নিজেদের শক্তির জানান দিচ্ছে এমনকি ক্রিকেটাররাও নিজেদের পকেট ভারি করছেন। যে যত বেশি ছক্কা মারতে পারেন বিভিন্ন লিগে তার তত বেশি চাহিদা।

তাহলে এবার আসা যাক বাংলাদেশ প্রসঙ্গে, টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে এই মুহূর্তে দারুণ ছন্দে আছেন আফিফ হোসেন। এ বছর আন্তর্জাতিক

টি-টোয়েন্টিতে ১২ ম্যাচে ১০ ছক্কা মেরেছেন এ বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। এ বছর এই সংস্করণে বাংলাদেশের হয়ে আফিফের ছক্কাসংখ্যাই সর্বোচ্চ। তবে এতে খুশি হওয়ার উপায়

নেই। কারণ পাপুয়া নিউ গিনির টনি উরা, আরব আমিরাতের মুহাম্মদ ওয়াসিম, অস্ট্রিয়ার ইকবাল হোসেন, বুলগেরিয়ার কেসি ডি’সউজা ও সার্বিয়ার ব্যাটসম্যান লেস ডানবার। তারা সবাই আফিফের চেয়ে বেশি ছক্কা মেরেছেন।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এ বছর ছক্কা মারার সংখ্যায় দুইয়ে টনি উরা (১২ ম্যাচে ৩৯টি), তিনে ওয়াসিম (১৩ ম্যাচে ৩৮টি), পাঁচে ইকবাল হোসেন (১২ ম্যাচে ৩৪টি), ছয়ে কেসি

ডি’সউজা (১৭ ম্যাচে ৩১টি) ও আটে ডানবার (১১ ম্যাচে ২৯টি)। এটা তো সহযোগী দেশের ক্রিকেটারদের ছক্কার হিসেব। এবার আসা যাক, টেস্ট খেলুড়ে দেশের ক্রিকেটারদের ছক্কার

হিসেবে। শীর্ষে ভারতের সূর্যকুমার যাদব (২২ ম্যাচে ৫০টি), চারে ওয়েস্ট ইন্ডিজের রোভম্যান পাওয়েল (১৭ ম্যাচে ৩৬টি) এবং সাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজেরই নিকোলাস পুরান (১৮ ম্যাচে ৩১টি)।

অর্থাৎ, ছক্কা মারায় ক্যারিবিয়ান হার্ড হিটারদেরও টেক্কা দিয়েছেন সহযোগি দেশের কিছু খেলোয়াড়। কিন্তু এই সময়ের নতুন সেনসেশন সূর্যকে কেউ টেক্কা দিতে পারেননি কেউ। এমনকি গোটা বাংলাদেশ দল মিলেও পারেনি!

এ বছর আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দলের ২৩ খেলোয়াড় মিলে মেরেছেন ৪৭টি ছক্কা। গত বছর মার্চ থেকে এই সংস্করণে সূর্যকুমার একাই ২২ ম্যাচে মেরেছেন ৫০ ছক্কা। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে

এক বছরে সর্বোচ্চ ছক্কা মারার রেকর্ডে মোহাম্মদ রিজওয়ানকে (৪২) পেছনে ফেলেছেন আগেই। পরশু দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২২ বলে ৬১ রানের ইনিংসে ৫ ছক্কায় রেকর্ডটিকে নিয়ে যান ‘ফিফটি’তে, এর সঙ্গে ধরে

ফেলেন অস্ট্রেলিয়াকেও। টি-টোয়েন্টিতে এ বছর অস্ট্রেলিয়ার ২৪ খেলোয়াড় মিলে সূর্যকুমারের সমান ছক্কা মেরেছেন। অর্থাৎ, বছরের এ সময় পর্যন্ত আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ৫০টি ছক্কা মেরেছে অস্ট্রেলিয়া। দলগুলোর মধ্যে শুধু বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়াই সূর্যের আওতার

মধ্যে। তার সামনে জিম্বাবুয়ে (৬৮ ছক্কা), পাকিস্তান (৭৫ ছক্কা), শ্রীলঙ্কা (৭৮ ছক্কা), দক্ষিণ আফ্রিকা (৭৯ ছক্কা) এবং নিউজিল্যান্ড (৮৮ ছক্কা)। এই দলগুলোকে সূর্যকুমার ধরতে পারবেন কি না,

তা সময়ই বলে দেবে। ইংল্যান্ড (১২৬ ছক্কা), ওয়েস্ট ইন্ডিজ (১৪৭ ছক্কা) এবং নিজের দল ভারত (২২৯ ছক্কা) সূর্যের আওতার বাইরে। শুধু সূর্যকুমার একাই বাংলাদেশকে পেছনে ফেলেছেন তা নয়,

ছক্কা মারার দিক থেকে বাংলাদেশকে পেছনে ফেলেছে আইসিসির কিছু সহযোগী দেশও। ডেনমার্ক (৫৪ ছক্কা), মালয়েশিয়া (৯২ ছক্কা), পাপুয়া নিউ গিনি (৯৪ ছক্কা) ও সিঙ্গাপুর (৬৭) এখনও পর্যন্ত বাংলাদেশের চেয়ে বেশি ছক্কা মেরেছে।

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন🙏

এই বিভাগের আরো খবর পড়ুন 👇
© All rights reserved © 2022
Site Customized By NewsTech.Com